| |

ভালুকায় মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিসৌধ নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন- কাজিম উদ্দিন আহম্মেদ ধনু এমপি

প্রকাশঃ February 27, 2021 | 8:39 pm

শেখ আজমল হুদা মাদানী ভালুকা প্রতিদিন:
ময়মনসিংহ ভালুকা উপজেলা বিরুনিয়া ইউনিয়ন ভাওয়ালিয়া বাজু বাজার মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিসৌধ নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন ২৭ ফেব্রুয়ারি শনিবার দুপরে স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কাজিম উদ্দিন আহম্মেদ ধনু।

জানাযায়, ১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল ভালুকা থানা আওয়ামী লীগের ওই সময়ের সহসভাপতি আফসার উদ্দিন আহাম্মেদ উপজেলার পারুলদিয়া গ্রামের আব্দুল হামিদের কাছ থেকে একটি মাত্র রাইফেল নিয়ে ভালুকায় মুক্তিযুদ্ধ শুরু করেছিলেন। এর কিছুদিন পর তার নামের সঙ্গে মিল রেখে সাড়ে চার হাজার মুক্তিযোদ্ধা নিয়ে বিশাল ‘আফসার বাহিনী’ গঠন করা হয়। পরে ময়মনসিংহ সদর দক্ষিণ ও ঢাকা উত্তর ১১ নম্বর সাব সেক্টর হিসেবে অন্তর্ভূক্ত হয়। ২৫ ও ২৬ জুন দীর্ঘ ৪৮ ঘণ্টা ভালুকা-গফরগাঁও সড়কের ভাওয়ালিয়া বাজার এলাকায় শিমুলিয়া খালের দু’পাশে হানাদারদের সঙ্গে আফসার বাহিনীর রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ সংগঠিত হয়।

সেই যুদ্ধে শতাধিক পাক সেনা নিহত ও আব্দুল মান্নান নামে এক মুক্তিযোদ্ধা শহীদ হন। ভালুকা ও এর আশপাশের বিভিন্ন থানায় সম্মুখ যুদ্ধে আফসার বাহিনীর ৩০ মুক্তিযোদ্ধা শহীদ হন।

অবশেষে ৮ ডিসেম্বর আফসার বাহিনীর আক্রমণের মুখে ভালুকা সদরের পাক বাহিনীর ক্যাম্পের প্রায় দেড় হাজার সদস্য আত্মসমর্পন করে। অনেকেই পিঠ বাঁচাতে অস্ত্র ফেলে পালিয়ে যায়। ভালুকা মুক্ত হয় হানাদার বাহিনীর কবল থেকে। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় একটানা ৭২ ঘন্টা ব্যাপী সম্মুখ যুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত স্থানটি হারিয়ে যেতে বসেছিল স্মরণীয় করে রাখতে বিরুনীয়া ইউনিয়নের ভাওয়ালীয়াবাজু বাজারে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি সৌধ নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ভালুকা উপজেলা শাখার সহকারী দপ্তর সম্পাদক আতাউর রহমান মাহবুব, ভালুকা উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মনিরুজ্জামান মামুন, বীর মুক্তিযোদ্ধা শুক্কুর মাহমুদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা বেলাল উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধ আ: ছাত্তার, আব্দুল খালেক।

অন্যান্যাদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সাবেক জেলা ছাত্রলীগ কারা নির্যাচিত নেতা সৌমিত চক্রবর্তী নিপুণ, উপজেলা ছাত্রলীগ সাবেক সাধারন সম্পাদক মাহমুদুল হাসান পাঠান সাতিলসহ আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন, তিনি বলেন ভবিষ্য প্রজন্ম সামরিক যুদ্ধের কৌলাকৌশল জানার জন্য কোন দিক থেকে কতোজন যুদ্ধ করেছিলেন তা স্থির চিত্র নির্মাণের কথা বলেন।

সঞ্চালনায় ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আফসার উদ্দিন ও মোশারফ ঢালী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *