| |

পানি বাড়ায় আতঙ্কে ঘর ছাড়ছে তিস্তাপাড়ের মানুষ

প্রকাশঃ জুন ১০, ২০২২ | ৯:১৬ অপরাহ্ণ

নীলফামারী সংবাদদাতা ভলুকা প্রতিদিন: নীলফামারীতে তিস্তা নদীর পানি বেড়েই চলেছে। ভারী বর্ষণ ও উজানের ঢলে নদীর পানি বেড়ে ব্যারাজ পয়েন্টের বিপদসীমা ছুঁই ছুঁই করছে। পানির চাপ মোকাবিলায় ব্যারাজের ৪৪টি গেট খুলে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার (০৯ জুন) বিকেল ৫টায় দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প লালমনিরহাট ও নীলফামারী জেলার সংযোগস্থলে তিস্তা ব্যারাজের ডালিয়া পয়েন্টে পানির প্রবাহ রেকর্ড করা হয় ৫২ দশমিক ২৮ সেন্টিমিটার। যা স্বাভাবিক ৫২ দশমিক ৬০ সেন্টিমিটার, কিন্তু এখন বিপদসীমার দশমিক ৩২ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) ডালিয়া শাখার নির্বাহী প্রকৌশলী আসফা উদ দৌলা বলেন, উজানের ঢলে তিস্তার পানি বাড়তে শুরু করেছে। পানির চাপ সামলাতে ৪৪টি গেট খুলে রাখা হয়েছে। এভাবে পানি বাড়তে থাকলে বন্যার আশঙ্কা রয়েছে। বন্যা মোকাবিলায় বিভিন্ন বাঁধ মেরামতের কাজ চলছে।
গত বছরের অক্টোবরে তিস্তায় পানি বাড়ায় আকস্মিক বন্যায় পানিবন্দি হয়ে পড়েছিল জেলার ডিমলা-জলঢাকার প্রায় ৪০ হাজার মানুষ। সর্বস্ব হারিয়েছিলেন অনেকেই। সেই ধকল কাটিয়ে উঠতে না উঠতে আবারও ভারী বর্ষণ এবং উজানের ঢলে পানি বাড়তে থাকায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন এই অঞ্চলের বাসিন্দারা। ইতোমধ্যে তাদের অনেকে ঘরে ছেড়ে আত্মীয়-স্বজনের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন। আবারও বন্যা এবং নদী ভাঙনের আশঙ্কা করছেন তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ব্রেকিংঃ